উফ ব্যা’থা অনুভব হচ্ছে আ’স্তে কর : প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

ইনস্টাগ্রামে তার প্রতিটি ছবিই ভক্তদের হৃদয়ে ঝড় তুলছে। বলিউড ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক তারকা হয়ে উঠেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।

তবে ছবি নয়, না লেখা ক্যাপশনই চোখ টানছে। বিনা ক্যাপশনে ছবি পোস্ট করেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। এই ছবিই হয়ে উঠেছে ইন্টারনেটে চর্চার বিষয়। ছবির চেয়ে বেশি টানছে পিছনের লেখা।

আগামী ২৬ এপ্রিল মার্কিন টিভি সিরিজ কোয়ান্টিকোর তৃতীয় সিজনের প্রিমিয়ার। তার আগে শ্যুটিংয়ে ব্যস্ত প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। শ্যুটিংয়ের ছবিও পোস্ট করেছেন। ভক্তদের সবসময় আপডেটও দেন প্রিয়াঙ্কা।

ইনস্টাগ্রামের এই ছবিতে ক্যাপশন নেই। কিন্তু, ব্যাকগ্রাউন্ডের লেখাটা বেশ সাহসী। ভালবাসা কেটে লেখা রয়েছে ‘F’ শব্দ। তারপর যে ইংরেজি শব্দ রয়েছে, তার ভাবার্থ কোমল, ধীরে বা আ’’’স্তে হতে পারে।

মূলত শুটিংয়ের আগে মেকআপ আর্টিস্ট দেখে দিয়ে চুলের কাজ করাচ্ছিলেন, এই সময় চুলে টান লাগায় তার ব্যা’’’থা অনুভব হচ্ছিল। তখন প্রিয়াঙ্কা তাকে বলেন ‘আ’’’স্তে ক’’’র, ব্যা’’’থা লাগছে’।

ফোবর্সের একশো সেলিব্রিটির তালিকায় ঠাঁই পেয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। এশিয়ার আবেদনময়ী সুন্দরীও হয়েছেন। হলিউডেও বেশ জমিয়ে বসেছেন প্রিয়াঙ্কা। বে ওয়াচের পর তিনি অভিনয় করছেন ‘আ কিড লাইক জেক’ ছবিতে। আরও পড়ুন : আলিয়া গর্ভে থাকাকালীনও অত্যাধিক করেছিলেন মা সোনি। আলিয়া ভাটের মা সোনি রাজদানও একসময় অভিনেত্রী হিসাবে কিছু কম জনপ্রিয় ছিলেন না। ৯ এর দশকে বলিউডের বহু ছবিতে সাহসী দৃশ্যে অভিনয় করেছেন সোনি। এমনকি তাঁর অভিনয়ে মুগ্ধ হয়েই একসময় তাঁর প্রেমে পড়েছিলেন পরিচালক মহেশ ভাট। ১৯৯৩ সালে মহেশ ভাট পরিচালিত

শ্রীদেবী-সঞ্জয় দত্ত অভিনীত ‘গুমরাহ’ ছবিতে দেখা গিয়েছিল সোনি রাজদানকে। যেখানে একজন জেলবন্দির চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি। সম্প্রতি, টুইটারে তাঁর সেই চরিত্রটি নিয়েই স্মৃতি রোমন্থন করেছেন সোনি। লিখেছেন,”

আমার অন্যতম পছন্দের ছবি, যে ছবিতে আমার চরিত্রটির জন্য ভীষণই প্রশংসা হয়েছিল। ভীষণই সু্ন্দর ছিল ওই মুহূর্তগুলি। ওই ছবিতেই নিজের চরিত্রের জন্য আমাকে অত্যাধিক ধূ”ম”পা”ন করতে হয়েছিল, অথচ সেসময় জানতামই না যে আমার গর্ভে রয়েছে আমার দ্বিতীয় সন্তান আলিয়া। ”

প্রসঙ্গত, আলিয়া ভাট ছাড়াও সোনি রাজদান ও মহেশ ভাটের আরও এক সন্তান রয়েছে, নাম শাহিন ভাট। এছাড়াও মহেশ ভাটের প্রথমপক্ষের স্ত্রী কিরণ ভাটেরও রয়েছে দুই সন্তান পূজা ভাট ও রাহুল ভাট।