কোমরের নিচটা র’ক্তা’ক্ত হয়ে গেছিল, তবুও থামেননি সৌমিতৃষা

এই মুহূর্তে কলকাতার বাংলা টেলিভিশনের এক নম্বর নায়িকা সৌমিতৃষা কুণ্ডু, সেই নিয়ে দ্বিমতের কোনো জায়গাই নেই। টিআরপি তালিকায় মিঠাই রানির আসন নড়িয়ে দেবে এমন সাধ্য কার!

চলতি বছরের শুরুতেই জি বাংলার পর্দায় শুরু হয়েছিল ‘মিঠাই’। লিড রোলে সৌমিতৃষা কুণ্ডু এবং আদৃতা রায়। এর আগে ছোটপর্দায় বেশ কিছু সিরিয়ালে অভিনয় করেছেন সৌমিতৃষা, তবে মিঠাই তার ক্যারিয়ারের একটা মোড় ঘোরানো মাইলফলক।

জানুয়ারি মাসে সম্প্রচার শুরু হওয়ার পর ৩৬ সপ্তাহ ধরে টিআরপি তালিকায় এক নম্বরে রয়েছে মিঠাই। এই সাফল্য কি ধরে রাখা এত সহজ? মোটেই নয়। এর জন্য কাজের প্রতি একান্ত নিষ্ঠা প্রয়োজন, যা ভরপুর রয়েছে মিঠাইয়ের পুরো টিমের মধ্যে। জানুয়ারিতে সম্প্রচার হলেও ডিসেম্বর মাসেই ‘মিঠাই’য়ের শুটিং শুরু হয়। আর শুটিং শুরুর এক বছর পূর্ণ হলো শনিবার। এ উপলক্ষেই ইনস্টাগ্রামে পুরনো স্মৃতি ভাগ করে নিলেন সৌমিতৃষা।

এদিন সিরিয়ালের প্রথম দৃশ্যের একটি ছবি এবং শুটিং চলাকালীন তাঁর কেটে যাওয়া ও আঘাত লাগার কিছু ছবি শেয়ার করেছেন মিঠাই রানি। এদিন উচ্ছেবাবুর তুফান মেইল লেখেন, ‘শুটিং শুরু হওয়ার পর থেকে এটি একটি দারুণ বছর ছিল! আমার মনে আছে,

শুটিংয়ের প্রথম দিন…মিঠাইয়ের স্বপ্নের সিকোয়েন্স…..আমার ক্ষতের কিছু স্মৃতি গ্যালারি থেকে খুঁজে পেলাম আর প্রথম দিনের ছবিও পেলাম… আমি আপনাদের সবার সঙ্গে শেয়ার করতে চাই..সেখানে ক্ষত ও ব্যথা ছিল …কিন্তু তার পরই আমার মুখে হাসি ফোটে যখন পরিচালক এবং ডিওপি (চিত্রগ্রাহক) আমাকে বলল, খুব ভালো হয়েছে শটটা। আর দেখতে দেখতে আমরা সাফল্যের সঙ্গে এক বছর পার করে ফেললাম। সময় খুব দ্রুত বয়ে যায়, এভাবেই আপনাদের ভালোবাসা পেতে চাই’। হিন্দুস্তান টাইমস, ইনস্টাগ্রাম।

About Ishaque Ali

Check Also

স্যার আমি আস্তে করি, চেষ্টা করি যেন বেশি ব্যথা না পায়

ক্লাস রুটিন আর পরীক্ষার রুটিনের বাইরে ভিন্ন রকম এক রুটিন চালু করেছে রাঙ্গুনিয়ার এক কওমি …